গ্যাসভিত্তিক তিনটি বিদ্যুৎকেন্দ্রের মেয়াদ পাঁচ বছর বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এর মধ্যে রয়েছে আশুলিয়া, মাধবদী ও চান্দিনা গ্যাস ভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র। সেই সঙ্গে ঘোড়াশাল তৃতীয় ইউনিট রি-পাওয়ার্ড কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের গ্যাস টারবাইনের ক্ষতিগ্রস্ত কম্প্রেসর মেরামত সেবা সুইজারল্যান্ডের একটি থেকে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে (ডিপিএম) ক্রয়ের নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি এবং অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় এসব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। 

বুধবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সভা দুটি অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে সভার সিদ্ধান্ত সাংবাদিকদের জানান মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আমিন উল আহসান।

তিনি বলেন, বিদ্যুৎ বিভাগের অধীন বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক আশুলিয়া ৩৩.৭৫ মেগাওয়াট, মাধবদী ২৪.৩০ মেগাওয়াট ও চান্দিনা ১৩.৫০ মেগাওয়াট গ্যাস ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মেয়াদ প্রভাবে তারিখ থেকে ৫ বছর বৃদ্ধির প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বর্ধিত মেয়াদে স্পন্সর কোম্পানি সামিট পাওয়ার লিসিটেডকে ট্যারিফ কিলোওয়াট ঘণ্টা ৫.৬৫ টাকা হিসেবে ১ হাজার ১১৮ কোটি টাকা পরিশোধ করতে হবে।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, বিদ্যুৎ বিভাগের অধীন বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলায় ৫০ মেগাওয়াট (এসি) ক্ষমতার সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের ট্যারিফ ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ট্যারিফ ভিত্তিতে বিদ্যুৎ ক্রয় করা হলে ২০ বছর মেয়াদে দরদাতা কনসোর্টিয়াম অফ এএসকে নিউ এনার্জি কো. লিমিটেড, এ জে পাওয়ার কো. লিমিটেড এবং এটিএন সল্যুশনস লিমিটেডকে প্রতি কিলোওয়াট ঘণ্টা ১০.৬৯৮ টাকা হিসাবে আনুমানিক এক হাজার ৭৩২ কোটি ৮০ লাখ টাকা পরিশোধ করতে হবে।

এ ছাড়া বিদ্যুৎ বিভাগের অধীন বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক ‘ ঘোড়াশাল ৩৬৫ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের’ সিডিউল ম্যান্টেনেন্স ওয়ার্ক সিমেন্স জার্মানির কাছ থেকে ২৯৬ কোটি ৯৭ লাখ ৫৪ হাজার ৭০৩ টাকায় ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

এর আগে অর্থনৈতিক বিষয়ক সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে বিদ্যুৎ বিভাগের অধীন বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বাবিউবো) কর্তৃক ঘোড়াশাল তৃতীয় ইউনিট রি-পাওয়ার্ড কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের গ্যাস টারবাইন এর ক্ষতিগ্রস্ত কম্প্রেসর মেরামত সেবা জিটি অংশের মূল প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান যথাক্রমে জেনারেল ইলেকট্রিক (সুইজারল্যান্ড) জিএমবিএইচ থেকে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে (ডিপিএম) ক্রয়ের নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

বুধবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সভা দুটি অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে সভার সিদ্ধান্ত সাংবাদিকদের জানান মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আমিন উল আহসান।

তিনি বলেন, বিদ্যুৎ বিভাগের অধীন বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক আশুলিয়া ৩৩.৭৫ মেগাওয়াট, মাধবদী ২৪.৩০ মেগাওয়াট ও চান্দিনা ১৩.৫০ মেগাওয়াট গ্যাস ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মেয়াদ প্রভাবে তারিখ থেকে ৫ বছর বৃদ্ধির প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বর্ধিত মেয়াদে স্পন্সর কোম্পানি সামিট পাওয়ার লিসিটেডকে ট্যারিফ কিলোওয়াট ঘণ্টা ৫.৬৫ টাকা হিসেবে ১ হাজার ১১৮ কোটি টাকা পরিশোধ করতে হবে।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, বিদ্যুৎ বিভাগের অধীন বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলায় ৫০ মেগাওয়াট (এসি) ক্ষমতার সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের ট্যারিফ ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ট্যারিফ ভিত্তিতে বিদ্যুৎ ক্রয় করা হলে ২০ বছর মেয়াদে দরদাতা কনসোর্টিয়াম অফ এএসকে নিউ এনার্জি কো. লিমিটেড, এ জে পাওয়ার কো. লিমিটেড এবং এটিএন সল্যুশনস লিমিটেডকে প্রতি কিলোওয়াট ঘণ্টা ১০.৬৯৮ টাকা হিসাবে আনুমানিক এক হাজার ৭৩২ কোটি ৮০ লাখ টাকা পরিশোধ করতে হবে।

এ ছাড়া বিদ্যুৎ বিভাগের অধীন বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক ‘ ঘোড়াশাল ৩৬৫ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের’ সিডিউল ম্যান্টেনেন্স ওয়ার্ক সিমেন্স জার্মানির কাছ থেকে ২৯৬ কোটি ৯৭ লাখ ৫৪ হাজার ৭০৩ টাকায় ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

এর আগে অর্থনৈতিক বিষয়ক সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে বিদ্যুৎ বিভাগের অধীন বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বাবিউবো) কর্তৃক ঘোড়াশাল তৃতীয় ইউনিট রি-পাওয়ার্ড কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের গ্যাস টারবাইন এর ক্ষতিগ্রস্ত কম্প্রেসর মেরামত সেবা জিটি অংশের মূল প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান যথাক্রমে জেনারেল ইলেকট্রিক (সুইজারল্যান্ড) জিএমবিএইচ থেকে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে (ডিপিএম) ক্রয়ের নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

মানবজমিন থেকে সংগৃহীত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *