দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিএনপি’র ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশ। গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে দলটির হাজার হাজার নেতাকর্মী এখন ঢাকায়।  অন্যদিকে ক্ষমতাসীন দলও এ সমাবেশকে নিয়ে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। ইতিমধ্যে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ও সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের নেতাকর্মীদের প্রস্তুত থাকার নির্দেশনা দেন। নির্দেশনা অনুযায়ী রাজাধানীতে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে ছাত্রলীগ। গতকাল দিনভর ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে মিছিল-স্লোগানে নিজেদের অবস্থানের জানান দেয় সরকারদলীয় সমর্থকরা। 

রাজধানীর শাহবাগ, নীলক্ষেত, সাইন্সল্যাব, লালবাগ, মৎস্যভবন, কাকরাইল, গুলিস্তানসহ গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ঘুরে এ চিত্র দেখা যায়। ছাত্রলীগ ছাড়াও যুবলীগ ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা কিছুক্ষণ পরপরই মিছিল নিয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদিক্ষণ করছিলেন। মিছিল থেকে নেতাকর্মীরা বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দেন। বাইক নিয়েও শোডাউন দিতে দেখা যায় অনেককে। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সাদ বিন কাদের চৌধুরী মানবজমিনকে বলেন, ‘১০ তারিখ বিএনপি সমাবেশের নামে যাতে কোনো ধরনের নাশকতা এবং জানমালের কোনো ক্ষতি করতে না পারে সেটি নিশ্চিতে রাজধানী সহ দেশের সব জায়গায় সতর্ক অবস্থানে রয়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। 

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার চলার পথকে মসৃণ রাখতে ছাত্রসমাজকে সঙ্গে নিয়ে যেকোনো অপশক্তিকে ছাত্রলীগ প্রতিহত করবে।’ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয়, ঢাকা মহানগরসহ গুরুত্বপূর্ণ ইউনিটগুলো বিলুপ্ত হওয়ায় সংগঠনের নেতাকর্মীরা বিক্ষিপ্তভাবে রাজধানীর মোড়ে মোড়ে মহড়া দেয়।

সংগঠনটির ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে দিনভর সতর্ক অবস্থানে ছিল। এ সময় তারা, স্লোগান, সংক্ষিপ্ত সমাবেশ, বাইক শোডাউন, গান-বাজনাসহ নানা কর্মসূচিতে রাজপথ দখলে রাখে। ছাত্রলীগের সদ্য বিদায়ী কমিটির কয়েকজন নেতার উদ্যোগে রাজু ভাস্কর্যের সামনে বিএনপি-জামায়াতের দুঃশাসনের খণ্ডচিত্র প্রদর্শনী ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে। সেখানে উপস্থিত ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফুজ্জামান আল ইমরান বলেন, বিএনপি আজ শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করবে সেটি আমরা প্রত্যাশা করি। সমাবেশের নামে দলটি কোনো ধরনের নৈরাজ্য সৃষ্টির চেষ্টা করলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সেটি প্রতিহত করতে মাঠে থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *